Aparajita Adhya; অপারাজিতা মায়ের সাথে ,’ মঙ্গল করে মলিন মর্ম ‘ গান করল

aparajita adhya; জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপারাজিতার মা দীর্ঘদিন অসুস্থা ছিলেন। তবে দীর্ঘদিন অসুস্থা থাকার পর অভিনেত্রীর মা আপাতত কিছুটা সুস্থ্য হয়ে উঠেছে। সুস্থ্য হওয়ার মেয়ের সঙ্গে বিছানায় বসে ভাঙ্গা গলায় রজনীকান্তের সেনের তুমি নির্মল করো , মঙ্গল করে মলিন মর্ম মুছায়ে ‘ গান ধরলেন।

এই গানে তার মায়ের সাথে গলা মেলানেন অভিনেত্রী নিজেও। তার মায়ের গলা কাপছে কিন্তু সুরের কোনো পরিবর্তন হয়নি। গানের মধ্যে উচ্চারনের কোনো ভুল হচ্ছে না, স্পষ্ট কণ্ঠে গান করতে দেখা গেলো।এই মুহুর্তের ছবি তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল শেয়ার করতে দেখা গিয়েছে।তবে তার মায়ের গানের এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার গর্ববোধ করছেন। কাপসানে লিখেছেন ‘এই গান টা আমার মায়ের কাছ থেকে শেখা ‘। 

অভিনেত্রীর “তুমি নির্মল করো” গানের ভিডিও ভাইরাল 

aparajita adhya অভিনেত্রীর মা গত ফেব্রুয়ারি থেকে রোগে ভুগছিলেন। তিনি নিজেও  মায়ের খেয়াল রাখতেন ও যত্ন করতেন।

তবে তার সেবা করার জন্য সরস্বতীকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন। কিছুদিন আগে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় সরস্বতীর প্রশংসা করেছিলেন।

তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখিছিলেন ‘ আমার মা আর মায়ের মাঝখানে যে বসে আছে সরস্বতী , ওর মধ্যে লক্ষ্মীর অনেক গুন’।

মাকে হাটতে শিখিয়েছে, মায়ের রাগ এবং বিরুক্তি, বারংবার কথা বলা, সব কিছু মেনে নিয়ে রাতের পর রাত জেগে তাঁর মাকে সারিয়ে তুলেছে।

সরস্বতী মত মানুষ আছে বলেই কোভিড পরিস্তিতে মানুষের পাশে দারিয়েছে।

আমি মাকে কখনই ওর মতো এত যত্ন করে সেবা করেতে পারিনি সময়ের অভবে।

আমার অনেক ফ্যান আছে তবে আমি সরস্বতীর ফ্যান তাকে স্যালুট জানায়।

আজ সরস্বতীর মত মানুষ আছে বলেই আমারা মা বাবাকে রেখে নিশ্চিন্তে বিদেশে যেতে পারছি।

এদের পারিশ্রমিক দাম কখনও টাকা পয়সা দিয়ে হয়না, এদের কৃতত্ব অপরিসীম।  

আমার যখন ১৫ বছর বয়স তখন বাবাকে হারিয়েছিলাম। তাঁরপর থেকে আমি মায়ের কাছে মানুষ হয়েছি।

সুখ দুখ সব কিছু মায়ের কাছে শেয়ার করেছি। বিয়ের পর আমি আমার শুশুরবাড়ীতে শুশুরকে বাবা হিসবে পেয়েছিলাম।

তিনি শুশুরকে বাবা হিসাব সবসময় কাছে পেয়েছিলেন। পরে উনাকেও হারিয়ে ফেলে বিশাল ভেঙে পড়েছিলাম ।

এখন তার মায়ি একমাত্র আশা ভরশা। তাই তিনি মাকে হারাতে চাননি। তাঁর মায়ের সুস্থ্যায় অনেক খুশি হয়েছেন এবং ধন্যবাদ জানাছেন। 

error: Content is protected !!