Kaylee McKeown; মুখ থেকে ‘F Bomb’ বেরিয়ে গেলো

Kaylee McKeown; অলিম্পিক সোনা জেতার পর তার এই প্রথম ইন্টার্ভিউ। এই প্রথম সাক্ষাৎকারে কি বলের বসলেন অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত সাতারু কাইলি ম্যাককেউন। হঠাৎ করে চার অক্ষরের কথা বেরিয়ে এলো। যার ভিডিও বড় নিউজ চ্যানেলে মাধ্যমে দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায়। 

টোকিও অলিম্পিক্সে ১০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে সোনা জেতার পর মহিলা সাঁতারুর মুখ থেকে নিষিদ্ধ শব্দ উচ্চারিত হল। তাঁর ‘F Bomb’ এই অশ্লীল শব্দ শোনার এই ভিডিওটি মুহুর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তাও আবার এই অশ্লীল শব্দের ভিডিও টি শোনা গিয়েছে সাংবাদিক চ্যালেনের লাইভ টিভিতে। সেনা জয়ী Kaylee McKeown মা জানিয়েছেন তাঁর এরকম কথা মুখে উচ্চারনের কারন তার কাছ থেকে জানবেন। 

Kaylee McKeown-কে এরকম বলতে দেখা গেলো ? 

তাঁর মনের মধ্যে এক আবেগের বিস্ফোরণ কাজ করছিল তারই বহিপ্রকাশ ঘটে যায় এই দিন। অস্ট্রেলিয়ান চ্যালেনে সাঁতারে রেস জেতার পর, সাক্ষাৎকারের সময় তাঁর মুখ থেকে অশ্লীল শব্দ বের হয়ে যায়। তিনি তাঁর বড়ো দিদি ও মায়ের জন্য আবেগি হয়ে পড়ে। তিনি জীবনে কঠিন সময় কিভাবে পার হয়ে এই জায়গায় এসেছেন।

তবে তাকে এই কুবাক্য বলেই তিনি সঙ্গে সঙ্গে লজ্জায় মুখে হাত দিয়ে দেন । তবে তিনি এই ভাষা প্রয়োগ করার পর বুজতে পারেন যে লাইভ টিভিতে এরকম বলা উচিত হয়নি।তিনি কিছুক্ষনের জন্য নিজেকে অপ্রস্তুকর বলে মনে হয়। ভিডিও মুহুর্তেই মধ্যেই ভাইরাল হয়ে পরেছে বিভিন্ন চ্যানেল তথা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যেম।

লাইভ টিভিতে তাঁর এই কুরুচিকর বাক্য প্রয়োগ নিয়ে নেটিজেনের মধ্যেই ব্যাপক ভাবে আলোচিত হতে দেখা যাছে। তাঁর মাও বলেছেন তার এরকম খারাপ শব্দ নিয়ে মেয়ের সঙ্গে কথা বলবেন তার এরকম কথা বলার কারন। তবে Kaylee McKeown যখন তাঁর মায়ের কথা জানান হয় তখন তিনি বলেন তিনি অসুবিধায় পরবেন এমন মনে হয়না। তিনি বলেছেন ‘ আমি  যা করেছি তা মায়ের ফেভারিট ও পছন্দের’।

তিনি অলিম্পিকে সাঁতরে জিতে প্রথম হয়। তাঁর বাবা দিন কয়েক দিন আগেই ব্রেন ক্যান্সারের মারা যায়। তাঁর টুইটার পেজে বাবাকে সম্মন করে টুইট করেছিলেন ” I will always be with you” (আমি সবসময় তোমার সঙ্গে থাকব )| তাঁর এই অলিম্পিকে যোগ দেওয়া তিনি অত্যন্ত কঠিন রাস্তা পেরিয়ে এসেছেন। সকলের জীবনে অনেক কাহিনী আছে তবে আমার কাহিনী অত্যন্ত কষ্টকর।

error: Content is protected !!